الثلاثاء، 2 مايو، 2017

He never said "God with us "

The Gospel of Matthew (Matthew 1:22–23) quotes part of this, "a virgin shall be with child, and shall bring forth a son, and they shall call his name Emmanuel" Translate "God is with us "
But Jesus said ... "Eli Eli .. why are you forsaken me ... He never said "God with us "

Ahmad Deedat - Pictured of Jesus / Gambaran Jesus (Indonesian Sub)

Profeti Muhamed në muajin shaban - Shqip - Bledar Haxhiu

शाबान के महीने के अह्काम व मसाईल - हिन्दी - अताउर्रहमान ज़ियाउल्लाह

Alışverişin Şartları Ve Yasaklanan Alışveriş Bölüm - 3. Ders - Fatih Bulut

Pardonnez-vous les uns les autres - Français - Soufiane Abou Ayoub

飲食 - 日本語 - ムハンマド・ブン・イブラーヒーム・アッ=トゥワイジリー

Краткая история Ислама. Часть 5 из 5: Правление Усмана ибн Аффана - Религия Ислам

Kurze Geschichte des Islam (teil 4 von 5): Das Kalifat von Abu Bakr und Umar - Die Religion des Islam

Namaaz e Janaaza

وقاية الإنسان من تسلط الشيطان

British paranormal activity investigator converts to Islam

Road of Islam | Nouman Ali Khan | illustrated | Subtitled

การห้ามไม่ให้ถือศีลอดครึ่งหลังของเดือนชะอฺบาน - ไทย - มุหัมมัด ศอลิหฺ อัล-มุนัจญิด

Une brève histoire de l’islam (partie 3 de 5) : La conquête de la Mecque - La religion de l'Islam

Breve historia del Islam (parte 2 de 5): La Hiyrah - La religión del Islam

A Brief History of Islam (part 1 of 5): The Prophet of Islam - The Religion of Islam

A religião do Islã - Artigos Mais Visualizados (média diária)

షఅబాన్ నెలలోని కల్పితాచరణలు - తెలుగు ప్రజలు

Sura 107, iAl Maún/i (la ayuda mínima) - La religión del Islam

The Bible Says Jesus Is Not God - (Shocking Evidence)

LA SERVIDUMBRE EN EL ISLAM - Español - Abdu Rahman As-Sheija

Chapter 85, Al-Buruj (The Great Constellations) - The Religion of Islam

Hijama

Dieu est al-Moujib – Celui qui exauce les prières - La religion de l'Islam

Latest Offers Archives - Understand Al-Qur'an Academy

3 favorite methods of Prophet Muhammad that promote healing & Powerful DUA

Kindness to Children

Islamic Online University: Courses

Regarding Following Madhabs - IOU Blog

27-61 - Umdatul Ahkaam - Prayer - Assim Al Hakeem - Part 48

حكم العمل في كازينو للقمار

Missionary Mishap: McLatchie’s Mystery Math™

La Historia de Jesús y María en el Sagrado Corán (parte 1 de 3): María - La religión del Islam

Labour Day Street #Dawah in Hong Kong | Special Guests - Br. Omar Esa and Sh. Edris Khamissa

الحلقة (7) برنامج تغريدات أسرية - بعنوان | مرحلة ما قبل الزفاف - مع الدكتور | أسامة زيدان

Victory only comes after succeeding in the Trials

Victory only comes after succeeding in the Trials
Allah said:
(Or think you that you will enter Paradise) before you are tested and tried just like the nations that came before you This is why Allah said:
(...without such (trials) as came to those who passed away before you They were afflicted with severe poverty and ailments) meaning, illnesses, pain, disasters and hardships. Ibn Mas`ud, Ibn `Abbas, Abu Al-`Aliyah, Mujahid, Sa`id bin Jubayr, Murrah Al-Hamdani, Al-Hasan, Qatadah, Ad-Dahhak, Ar-Rabi`, As-Suddi and Muqatil bin Hayyan said that
(Al-Ba'sa') means poverty. Ibn `Abbas said that
(...and Ad-Darra') means ailments.
(and were so shaken) for fear of the enemy, and were tested, and put to a tremendous trial. An authentic Hadith narrated that Khabbab bin Al-Aratt said, "We said, `O Messenger of Allah! Why do you not invoke Allah to support us Why do you not supplicate to Allah for us' He said:
(The saw would be placed on the middle of the head of one of those who were before you (believers) and he would be sawn until his feet, and he would be combed with iron combs between his skin and bones, yet that would not make him change his religion.)
He then said:
(By Allah! This matter (religion) will spread (or expand) by Allah until the traveler leaves San`a' to Hadramawt (both in Yemen, but at a great distance from each other) fearing only Allah and then the wolf for the sake of his sheep. You are just a hasty people.)
And Allah said:
(Alif-Lam-Mim. Do people think that they will be left alone because they say: "We believe,'' and will not be tested And We indeed tested those who were before them. And Allah will certainly make (it) known (the truth of) those who are true, and will certainly make (it) known (the falsehood of) those who are liars.) (29:1-3)
The Companions experienced tremendous trials during the battle of Al-Ahzab (the Confederates). Allah said:
(When they came upon you from above you and from below you, and when the eyes grew wild and the hearts reached to the throats, and you were harboring doubts about Allah. There, the believers were tried and shaken with a mighty shaking. And when the hypocrites and those in whose hearts is a disease (of doubts) said: "Allah and His Messenger promised us nothing but delusion!'') (33:10-12)
When Heraclius asked Abu Sufyan, "Did you fight him (Prophet Muhammad)'' He said, "Yes.'' Heraclius said, "What was the outcome of warfare between you'' Abu Sufyan said, "Sometimes we lose and sometimes he loses.'' He said, "Such is the case with Prophets, they are tested, but the final victory is theirs.''
Allah's statement:
(...without (such) (trials) as came to those who passed away before you) meaning, their way of life. Similarly, Allah said:
(Then We destroyed men stronger (in power) than these ـ and the example of the ancients has passed away (before them)) (43: 8) and:
(...were so shaken that even the Messenger and those who believed along with him said, "When (will come) the help of Allah.'')
They pleaded (to Allah) for victory against their enemies and invoked Him for aid and deliverance from their hardships and trials. Allah said:
(Yes! Certainly, the help of Allah is near!)
Allah said:
(Verily, along with every hardship is relief. Verily, along with every hardship is relief.) (94:5, 6)
So just as there is hardship, its equal of relief will soon arrive. This is why Allah said:
(Yes! Certainly, the help of Allah is near!)
Quran Tafsir Ibn Kathir
أعجبنيعرض مزيد من التفاعلات
تعليق

--কিভাবে নামাজের #মাধূর্য আস্বাদন করা যায়?--

--কিভাবে নামাজের #মাধূর্য আস্বাদন করা যায়?--
পর্ব ৪
আবেগ-অনভূতির সর্বোচ্চ শিখর:
আজ আমরা আরো গভীরে প্রবেশ করব; এখন পর্যন্ত আমরা একাগ্র হয়েছি, যা উচ্চারণ করি তা অর্থ বুঝে করি, এবং দুই ধরনের আবেগ নিয়ে নামাজে আল্লাহর সামনে দাঁড়াই, আর আজকে আরো এক ধরনের আবেগ নিয়ে কথা বলবো|এই আবেগ নিয়ে নামাজে দাড়ালে আমাদের নামাজকে খুব কম সময়ের নামাজ বলে মনে হবে, কিন্তু নামাজ শেষ করে ঘড়ি দেখলে মনে হবে, “আরে! এত তারাতারি ১০ মিনিট পার হয়ে গেছে?” কিংবা ১৫ মিনিট বা ২০ মিনিট(ইনশা-আল্লাহ)| যে ব্যক্তি নামাজে এই আবেগটা প্রয়োগ করতে শুরু করবে তার ইচ্ছা হবে এই নামাজ যেনো কখনো শেষ না হয়|এটি এমন একটি আবেগ যা সম্পর্কে ইবনে কায়য়্যিম বলেন, “যার জন্যে প্রতিযোগীরা প্রতিযোগিতা করে….এটা হল আত্মার জন্য পুষ্টি আর চোখের জন্য শীতলতা|” তিনি আরো বলেন, “যদি হৃদয় থেকে এই অনুভুতি বের হয়ে যায়, এটা অনেকটা এমন যেমন প্রাণ ছাড়া শরীর|”
এই আবেগ কোনটি জানেন?
ভালোবাসা(الحب)
কিছু কিছু মানুষের আল্লাহর সাথে সম্পর্ক শুধু তাঁর আদেশ আর নিষেধ এর মাঝেই সীমাবদ্ধ, যাতে সে জাহান্নাম থেকে বাঁচা যায়| অবশ্যই আমাদের আদেশ, নিষেধ মেনে চলতে হবে, কিন্তু এটা শুধু ভয় আর আশা নিয়ে নয়, বরং আল্লাহ তায়ালার প্রতি পরম ভক্তি ও ভালোবাসা নিয়ে করতে হবে| আল্লাহতায়ালা কোরআনে বলেন:
‘…..অচিরে আল্লাহ এমন সম্প্রদায় সৃষ্টি করবেন, যাদেরকে তিনি ভালবাসবেন এবং তারা তাঁকে ভালবাসবে|’ [আল মাঈদা ৫:৫৪]
সচারচর দেখা যায় যখন মানুষ তার পছন্দের মানুষের কাছে আসে, হৃদয়ে চাঞ্চল্যতা আসে, আন্তরিকতা আসে| কিন্তু আল্লাহর সাথে দেখা করার সময়, নামাজে আমরা বিন্দুমাত্রও এই আবেগ অনুভব করিনা| আল্লাহতায়ালা পবিত্র কোরআনে বলেন:
وَمِنَ النَّاسِ مَن يَتَّخِذُ مِن دُونِ اللَّهِ أَندَادًا يُحِبُّونَهُمْ كَحُبِّ اللَّهِ ۖ وَالَّذِينَ آمَنُوا أَشَدُّ حُبًّا لِّلَّهِ ۗ وَلَوْ يَرَى الَّذِينَ ظَلَمُوا إِذْ يَرَوْنَ الْعَذَابَ أَنَّ الْقُوَّةَ لِلَّهِ جَمِيعًا وَأَنَّ اللَّهَ شَدِيدُ الْعَذَابِ
“আর কোন লোক এমনও রয়েছে যারা অন্যান্যকে আল্লাহর সমকক্ষ সাব্যস্ত করে এবং তাদের প্রতি তেমনি ভালবাসা পোষণ করে, যেমন আল্লাহর প্রতি ভালবাসা হয়ে থাকে। কিন্তু যারা আল্লাহর প্রতি ঈমানদার তাদের ভালবাসা ওদের তুলনায় বহুগুণ বেশী|” [সুরা বাকারা ২:১৬৫]
যখন আমরা নামাজের জন্য হাত উপরে তুলি তখন সেখানে আল্লাহর জন্য আকুলতা থাকা উচিত, ভালোবাসা ও আন্তরিকতায় আমাদের হৃদয় পূর্ণ থাকা উচিত কারণ আমরা এখন আল্লাহর সাথে মিলিত হতে যাচ্ছি|
নবী(সা:) এর একটি দূ’আ আছে:
اللهم إني أسألك الشوق الى لقائك
“ইয়া আল্লাহ, তোমার সাথে মিলিত হবার আকুলতা আমার হৃদয়ে স্থাপন করে দাও|”( নাসাঈ, হাকিম)
ইবনে আল কায়য়িম তাঁর ‘তারিখ আল-হিজরাতাঈন’ নামক বইতে বলেন আল্লাহতায়ালা তাঁর রাসুলদের এবং তাঁর মুমিন বান্দাদের ভালোবাসেন, এবং রাসূলগণ এবং মুমিনরাও তাঁকে ভালোবাসেন এবং তাদের কাছে আল্লাহতায়ালার চেয়ে বেশী প্রিয় আর কিছু নেই| পিতামাতার প্রতি ভালোবাসার মাধুর্য এক ধরনের, সন্তানের প্রতি ভালোবাসাও আরেক রকম, কিন্তু আল্লাহ তায়ালার প্রতি ভালোবাসা অন্যসব কিছুর তুলনায় বেশী মাধুর্যময়| নবী(সা:) বলেছেন:
“ যে ব্যক্তি তিনটি গুনকে একত্রে সংযুক্ত করতে পারবে সে ঈমানের প্রকৃত মজা পাবে…”
প্রথম যে জিনিসটি তিনি(সা:) উল্লেখ করেন সেটা হল যে: “..আল্লাহ ও তাঁর রাসূল তার কাছে সবকিছুর চেয়ে বেশী প্রিয় হতে হবে…”
ইবনে আল-কায়য়িম বলেন, “যেহেতু ‘কোন কিছুই তাঁর অনুরূপ নয়’[সুরা আস-শুরা ৪২:১১] সেহেতু তাকে ভালোবাসার অনুরূপও আর কিছুই হতে পারেনা|”যদি আপনি এই ভালোবাসার গভীরতা ও মাধূর্য একবার অনুভব করতে পারেন, তাহলে আপনার আর নামাজ ছেড়ে উঠতে ইচ্ছে করবে না|
আমি এই ভালোবাসা অনুভব করতে চাই; কিন্তু কিভাবে?
আপনি কি সত্যিই এই ভালোবাসা অনুভব করতে চান? তাহলে নিজেকেই জিগ্যেস করুন- কেন আপনি আল্লাহকে ভালোবাসতে চান? কারণ এটা জেনে রাখেন যে মানুষ মূলত ভালোবাসে তিনটি কারণের যেকোনো একটির(অথবা কমবেশি মাত্রায় তিনটির জন্যই) জন্য:
১. তাদের সৌন্দর্যের জন্য;
২. তাদের মান-সম্মান বা উচ্চমর্যাদার জন্য;
৩. অথবা তারা আপনার জন্য ভালো কিছু করেছে এই জন্য;
আরও এটা জেনে রাখেন যে আল্লাহতায়ালা এই তিনটি গুনেই অন্য সবার চেয়ে অনেক অনেক উপরে|
১. সৌন্দর্য
সৌন্দর্য সবসময়ই আমাদের হৃদয়কে ছুঁয়ে যায়| এটা অনেকটা আমাদের ফিতরাত(যা প্রাকৃতিকভাবে থাকে)এর মতো| আলী ইবনে আবি তালিব (রাদি-আল্লাহু আনহু) নবী(সা:)সম্পর্কে বলেন যে “তাকে দেখে মনে হত তাঁর মুখ থেকে সূর্যের কিরণ বের হচ্ছে|” জাবির(রা:) বলেন: “রাসূলুল্লাহ(সা:) পূর্নিমার চাঁদের চেয়েও সুশ্রী, সুন্দর এবং উজ্জ্বল ছিলেন|” (তিরমিজী) আল্লাহতায়ালা তাঁর সকল নবী রাসূলগনকে অসাধারণ সৌন্দর্য দান করেছিলেন যাতে মানুষ তাঁদের প্রতি প্রাকৃতিকভাবেই আকৃষ্ট হয়|
আর সৌন্দর্য শুধু মানুষের মুখের মাঝেই সীমাবদ্ধ না, সৌন্দর্য সকল সৃষ্টিজগতের মাঝেই ছড়িয়ে রয়েছে এবং প্রায়ই তা আমাদের মুগ্ধ করে, আমাদের করে বাকহারা এবং সাথে সাথে আমাদের দেয় এক স্বর্গীয় শান্তির অনুভুতি| পূর্ণিমা রাতের শান্ত চাঁদের আলো, পাহাড় বয়ে নেমে আসা স্বচ্ছ পানির ঝর্না, কিংবা সমুদ্র পাড়ের রক্তিম সূর্যাস্ত…ইত্যাদির সামনে এলে কেমন যেনো একটা গভীর অনুভুতি আমাদের মাঝে বয়ে যায় যা খুবই পবিত্র, আমাদের করে তোলে মোহিত, মুগ্ধ| অবশ্য আজকাল শহরের যান্ত্রিকতা আর রুক্ষতা অবশ্য আমাদের এই পবিত্র অনুভুতি গুলোকেও মলিন করে দিয়েছে|
আর আল্লাহতায়ালা হলেন সেই সত্তা যিনি এইসব সৌন্দর্যকে সৃষ্টি করেছেন, সাজিয়েছেন, সৌন্দর্যমন্ডিত করেছেন| তাহলে আল্লাহর নিজের সৌন্দর্য কোন পর্যায়ের হতে পারে? ইবনে আল-কায়য়িম বলেন, “আর আল্লাহতায়ালার সৌন্দর্য উপলব্ধি করার জন্যে এটা জানা থাকাই যথেষ্ঠ যে এই জীবন এবং এর পরের জীবনের অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক সকল সৌন্দর্য তাঁরই সৃষ্টি, তাহলে তাদের সৃষ্টিকর্তা কতটা সুন্দর হতে পারেন?”
আল্লাহতায়ালা সুন্দর, এ জন্যেই সৌন্দর্যের জন্য আকর্ষণ আমাদের ফিতরাত| আল্লাহতায়ালার একটি নাম হল আল-জামীল(যিনি সবচেয়ে সুন্দর)| ইবনে আল-কায়য়্যিম বলেন আল্লাহ তায়ালার সৌন্দর্য এমন যে কেউ শুধু তা জেনে রাখতে পারেন, তা কল্পনা করার ক্ষমতা কারোরই নেই| এই মহাজগতের সকল সৌন্দর্য একত্রেও তাঁর নিজের সৌন্দর্যের এক বিন্দুও নয়| ইবনে আল-কায়য়িম বলেন সুর্য কিরণের যেমন সূর্যের সাথে তুলনা হয় না, ঠিক তেমন যদি সময় সৃষ্টির শুরু থেকে কেয়ামতের আগ পর্যন্ত সকল কিছুর সৌন্দর্য একত্র করা হয়, তবুও তা আল্লাহর সৌন্দর্যের সাথে তুলনা করারো যোগ্য হবে না| আল্লাহতায়ালা এত প্রবল সৌন্দর্যের অধিকারী যে এই জগতে আমাদের তা সহ্য করার ক্ষমতা নেই| পবিত্র কোরআনে, আল্লাহ তায়ালা মুসা(আ:)এর অনুরোধ বর্ণনা করেন:
وَلَمَّا جَاءَ مُوسَىٰ لِمِيقَاتِنَا وَكَلَّمَهُ رَبُّهُ قَالَ رَبِّ أَرِنِي أَنظُرْ إِلَيْكَ ۚ قَالَ لَن تَرَانِي وَلَٰكِنِ انظُرْ إِلَى الْجَبَلِ فَإِنِ اسْتَقَرَّ مَكَانَهُ فَسَوْفَ تَرَانِي ۚ فَلَمَّا تَجَلَّىٰ رَبُّهُ لِلْجَبَلِ جَعَلَهُ دَكًّا وَخَرَّ مُوسَىٰ صَعِقًا ۚ فَلَمَّا أَفَاقَ قَالَ سُبْحَانَكَ تُبْتُ إِلَيْكَ وَأَنَا أَوَّلُ الْمُؤْمِنِينَ
“তারপর মূসা যখন আমার প্রতিশ্রুত সময় অনুযায়ী এসে হাযির হলেন এবং তাঁর সাথে তার পরওয়ারদেগার কথা বললেন, তখন তিনি বললেন, হে আমার প্রভু, তোমার দীদার আমাকে দাও, যেন আমি তোমাকে দেখতে পাই। তিনি বললেন, ‘তুমি আমাকে দেখতে পাবে না, তবে তুমি পাহাড়ের দিকে দেখতে থাক, সেটি যদি স্বস্থানে দঁড়িয়ে থাকে তবে তুমিও আমাকে দেখতে পাবে|’ তারপর যখন তার পরওয়ারদগার পাহাড়ের উপর আপন জ্যোতির বিকিরণ ঘটালেন, সেটিকে বিধ্বস্ত করে দিলেন এবং মূসা অজ্ঞান হয়ে পড়ে গেলেন…|” [আল আরাফ ৭:১৪৩]
পাথরের পাহাড়ও আল্লাহর সৌন্দর্যের সামান্য জ্যোতি বহন করতে পারেনি এবং বিধ্বস্ত হয়ে গেছে, এবং এই ঘটনা দেখে মুসা(আ:) জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন| এ কারণেই হাশরের ময়দানে সবকিছু আল্লাহর সৌন্দর্যে দীপ্তিময় হয়ে উঠবে| আমরা শুধু তাঁর সৌন্দর্যের কথা আলোচনাই করতে পাড়ি কিন্তু তা অবলোকন করা আমাদের আয়ত্তের বাহিরে| এই বিশ্বজগতের এত সুন্দর, এত মোহনীয় সব জায়গা, জিনিস, মানুষ অথবা তাদের সবার সৌন্দর্য একত্রেও একটি নির্দিষ্ট গন্ডির মাঝেই সীমাবদ্ধ; আসল মহিমা আর সৌন্দর্যতো আল্লাহতায়ালার| আল্লাহতায়ালা বলেন:
وَيَبْقَىٰ وَجْهُ رَبِّكَ ذُو الْجَلَالِ وَالْإِكْرَامِ
আর তখন শুধু বাকি রয়ে যাবে আপনার রবের মহিমা এবং সম্মান|[আর রাহমান ৫৫:২৭]
এসব কিছু ভেবেই, মহানবী(সা:) বলেছেন:
إن الله ينصب وجهه لوجه عبده في صلاته ما لم يلتفت
বান্দা যখন নামাজে দাঁড়ায় আল্লাহতায়ালা তাঁর বান্দার দিকে তাকান এবং যতক্ষণ সে নামাজে থাকে ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি তাঁর মুখ ফেরান না| (তিরমিজী)
নামাজে দাঁড়িয়ে এই কথা মাথায় রাখবেন, এবং প্রার্থনা করবেন যেন আল্লাহ আপনাকে জান্নাতে তাঁকে দেখার সুযোগ দেন|
এই ভালোবাসাকে কি আরও উপরে নিয়ে যেতে চান? তাহলে সাথেই থাকুন|
[চলবে…..(ইন শা-আল্লাহ)]
লিখাটি এই সাইট থেকে অনুবাদকৃত http://www.virtualmosque.com/islam-studies/beauty/
অনুবাদ করেছেনঃ QuranerAlo.com - কুর'আনের আলো
أعجبنيعرض مزيد من التفاعلات
تعليق

Islam Land أرض الإسلام

Shocking photos reveal plight of those forced to sleep rough in Glasgow

The right way to fast by Mufti Menk

Islam and Christianity - Gary Miller - Ahmad Deedat

শাবান মাসের ফযীলত - বাংলা - আখতারুজ্জামান মুহাম্মদ সুলাইমান

Christian pastor JD Hall : David Wood is caustic and should stay away from apologetics and get a hobby

How to Teach Kids Salat - Nouman Ali Khan - illustrated | Subtitled

إذا خرج من القلب دخل في القلب

How to perform Ghusl( Full body Bath)? by Assim Al Hakeem

قبسات : لن تنالوا البر حتى تنفقوا مما تحبون - محمد بن عبد الرحمن العريفي

Muslim Personal Laws Most Progressive of All Communities: Legal Luminaries at Kolkata Seminar

The Truth About Vaccines Docu-series - Episode 1

নির্বাচিত হাদীস পঞ্চম খণ্ড - বাংলা - মুহাম্মাদ মর্তুজা ইবন আয়েশ মুহাম্মাদ

فضل الإنفاق في سبيل الله - عربي - محمد بن محمد المختار الشنقيطي

Medicine Has confirmed benefits of fasting Monday and Thursday Mufti Menk

فوائد نواة التمر


فوائد نواة التمر
• إذا أحرقت نواة التمر وسحقتها انبتت رموش العين
ويطحن ويخلط مع زيت الزيتون ويستعمل للشعر فهو يساعد على نمو الشعر
 • بالنسبة لنوى التمر واستعماله كقهوة تعتبره النساء من أقوى المغذيات والمدرات لحليب المرأة المرضع .
• يساعد نوى التمر إذا استعمل كبخور بعد الولادة ؛ لإعادة الرحم إلى مكانه ،
وللتخفيف من آلام المفاصل .
 • يساعد نوى التمر في تسكين آلام الأسنان ، وذلك بتكسير النواة وجعلها في الفم ، واستحلابها ، فتقوم المادة الموجودة فيها بالتخدير لتميزها بطعم مر وقابض .
 • يمكن الاستفادة من نوى التمر حيث يمكن إنتاج ما يعرف ببديل الكاكاو (أو الشوكلاطة) وقد أجريت البحوث على ذلك وثبت نجاحها عندما خلطت مع الآيسكريم لم يستطع من أجريت عليهم التجربة التمييز بين الآيسكريم المضاف اليه الشوكلاطة أو المضاف إليه مسحوق نواة التمر المحمص .
التجارب أثبتت فائدتها لمرضى السكر والوقاية من «السرطان»
 سبحان الله العظيم ما خلق شيء الا وله فوائد سبحانه العظيم الكريم




Quran’s Lesson - Surah Al-Hijr 15, Verse 9, Part 14


‏‏‎Darussalam Publishers & Distributors‎‏ مع ‏‎Sakina Abubakar‎‏ و‏‎Muhammad Mustafa‎‏‏.
Quran’s Lesson - Surah Al-Hijr 15, Verse 9, Part 14
إِنَّا نَحْنُ نَزَّلْنَا الذِّكْرَ وَإِنَّا لَهُ لَحَافِظُونَ
Verily We: It is We Who have sent down the Dhikr (i.e. the Quran) and surely, We will guard it (from corruption).
یقینا ہم نے ہی الذکر (قرآن) اتارا ہے اور یقینا ہم ہی اس کے محافظ ہیں۔
[Al-Quran 15:9]

La religione dell'Islam - Articoli più visti (media giornaliera)

The Muslim Roots of American Slaves (part 1 of 2): From Africa to America - The Religion of Islam

قبسات : خروج الدابــة - صالح بن عواد المغامسي

Dyeing Hair

Daily Hadith | Dyeing Hair
عَنْ أَبِي ذَرٍّ، قَالَ قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم إِنَّ أَحْسَنَ مَا غَيَّرْتُمْ بِهِ الشَّيْبَ الْحِنَّاءُ وَالْكَتَمُ
It was narrated that Abu Dharr said: The Messenger of Allah ﷺ said: “The best things with which you can change gray hair are Henna and Katam.”
ابو ذر سے روایت ہے کہ رسول اللہ صلی اللہ علیہ وآلہ وسلم نے فرمایا بہترین چیز جس سے تم سفید بال بدل سکتے ہو وہ حنا (مہندی) اور کتم (وسمہ) ہیں۔
[Sunan An-Nasai, Book of Adornment, Hadith: 5078]
Chapter: Dyeing Hair with Henna and Katam.
 Grade: Sahih